in

শিশু ও বৃদ্ধদের দেখাশোনার জন্য পরিযায়ী আয়াদের ওপর তন্বী চৌধুরীর তথ্যচিত্র “মীরা’জ মাইন্ডারস”

পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন গ্রাম তথা কলকাতা থেকে শিশু ও বৃদ্ধদের দেখাশোনার জন্য ভারতবর্ষের নানান প্রান্তে পাড়ি দেওয়া পরিযায়ী আয়াদের ওপর নির্মিত ৬০ মিনিটের একটি তথ্যচিত্র “মীরা’জ মাইন্ডারস” বা যারা মীরার সাথে ছিল। বর্তমানের উন্নয়নশীল সমাজের প্রেক্ষিতে এই অসংগঠিত শ্রমজীবিকার কর্মক্ষেত্রটি গবেষণা করা হয়েছে এই তথ্যচিত্রে।

 

পরিচালকের তন্বী চৌধুরীর কথায় “ভারতবর্ষের শহর ও মফঃস্বল থেকে যারা অন্য দেশে অধিবাসের জন্য পাড়ি দেয় সেক্ষেত্রে নিজের বাড়ির দেখাশোনার জন্য, বিশেষত প্রবীন বদ্ধ মানুষদের দেখাশোনার জন্য তাদের এই ধরণের সর্বক্ষণের পরিচারিকা বা আয়াদের ওপর নির্ভরশীল। আমি নিজে যেহেতু আমেরিকার একজন প্রথম প্রজন্ম আধিবাসী এবং ভারতবাসী সেহেতু এই দুই দেশেই নিজের অস্তিত্ব গড়ে তুলেছি। সেখান থেকেই আমার এই তথ্যচিত্র নির্মাণের চিন্তা মাথায় এলো”।

এই তথ্যচিত্রে সমাজতত্ত্বের “ভিজ্যুয়াল এথনোলজি” পদ্ধতিকে ব্যবহাত করে আয়াদের এই অস্থায়ী অসংগঠিত শ্রমদানের ধারাকে তিনভাগে ভাগ করা হয়েছে। কিছুটা কাল্পনিক তত্ত্বও সংমিশ্রিত হয়েছে এক্ষেত্রে। ‘কুমতি’ অর্থাৎ যে ধূর্ত শ্রমজীবি, ‘সুমতি’ অর্থাৎ যে বিনা প্রতিবাদে সমস্ত নিয়মকে মেনে নেয় আর ‘শান্তমতি’ অর্থাৎ যে প্রতিবাদী। এই তথ্যচিত্রে বর্তমানের পরিবর্তনশীল শ্রমক্ষেত্রে আয়াদের জীবনের মান পরবর্তন, কিছু বিশেষ প্রতিবন্ধকতা, উপার্জন এবং সম্মানকে অনুসন্ধান করা হয়েছে। তথ্যচিত্রটিকে তত্ত্ব ও শিক্ষার জায়গা থেকে তুলে এনে অনেক বেশী মানবিক করা হয়েছে।

 

P.c : Bulan

What do you think?

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.

GIPHY App Key not set. Please check settings

Loading…

0

Bengal achievers Award 2022

George Telegraph Inaugurates Its First Image Management Institute In Eastern India