Tollywood News

পরীমনি নয় , সৃজিতের নতুন সিরিজে নায়িকা হওয়ার দৌড়ে জয়া-পূর্ণিমা

‘হইচই’র ব্যানারে ওয়েব সিরিজ নির্মাণ করবেন জনপ্রিয় পরিচালক সৃজিত মুখার্জি। বাংলাদেশের লেখক নাজিম উদ্দিনের ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনো খেতে আসেননি. উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত হবে ওয়েব সিরিজ। এখানে নায়িকা থাকবেন ঢালিউডের পরীমনি। বলা হয় উপন্যাসটির কেন্দ্রীয় চরিত্র মুশকান জুবেরীর ভূমিকায় অভিনয় করবেন পরী। অন্যান্য চরিত্রে অভিনয় করবেন চঞ্চল চৌধুরী, মোশারফ করিম এবং কলকাতার অনির্বাণ ভট্টাচার্য।

আনন্দবাজারের দেয়া তথ্যগুলো মিথ্যে বলে দাবি করেছে ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনো খেতে আসেননি’ উপন্যাসটির কপিরাইট কেনা কলকাতার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান টিভিওয়ালা মিডিয়া। তারা বলছে, ওয়েব সিরিজটি নিয়ে সম্প্রতি যে খবর প্রকাশিত হয়েছে বিভিন্ন গণমাধ্যমে তা বেশিরভাগই সত্য নয়।

 টিভিওয়ালা মিডিয়ার এক শীর্ষ কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে জানান, লেখক নাজিম উদ্দিনের কাছ থেকে কপিরাইট কেনার পর সৃজিত মুখার্জি এটি নিয়ে কাজ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেন। তিনিই সিরিজটি করছেন, এটা সত্য। বর্তমানে সিরিজটির চিত্রনাট্যের কাজও চলছে। লকডাউনের মধ্যেই জুম কলে আমরা এই সিরিজটি নিয়ে একাধিক মিটিং করেছি।

‘হইচই’কেও আমরা বেশ বড় বাজেটের একটি প্রস্তাব দিয়েছি ওয়েব সিরিজটির জন্য। সেখান থেকে এখনো কোনো সবুজ সংকেত পাইনি। এর চেয়ে নতুন কোনো তথ্য বা আপডেট নেই।

প্রাথমিকভাবে ৪ জনকে নিয়ে একটা তালিকা করেছিলাম আমরা। সেখানে বাংলাদেশের জয়া আহসান ও পূর্ণিমা রয়েছেন। আরও দুইজন আছেন। তাদের নাম এখনই বলতে চাইছি না। চূড়ান্ত হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতেই হবে। তবে এ তালিকায় পরীমনি ছিলেন না।

টিভিওয়ালা মিডিয়ার শীর্ষ কর্মকর্তা আরও জানিয়েছেন, ‘দেখুন পরীমানি নায়িকা হতে পারবেন না বা অন্যরা থাকছেন ব্যাপারটি এমন নয়। যেহেতু কোন কিছুই চূড়ান্ত না তাই সেটা শতভাগ নিশ্চিত না হয়ে প্রকাশ না করাই ভালো। খবর প্রকাশের পর যদি কেউ বাদ পড়েন সেটা তার জন্য খুবই খারাপ দেখায়। আর এখনই এই সিরিজের কাজ শুরু হচ্ছে না। এটি শুরু করতে করতে এ বছর চলে যাবে। সৃজিত খুব ব্যস্ত। আমাদেরও গুছানোর অনেক কাজ আছে।’

পরীমনি ছাড়াও চঞ্চল চৌধুরী, মোশারফ করিম এবং অনির্বাণ ভট্টাচার্যসহ বিভিন্ন সংবাদে যাদের নামই প্রকাশিত হয়েছে তারা কেউই এখনই চূড়ান্ত নয় এমনটাই জানা গেছে ।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close