নতুন বাংলা সিনেমা ‘তুমি ও তুমি’ চলছে শুটিং

ডিজি ম্যাক্স নিবেদিত ‘তুমি ও তুমি’র শুটিং শুরু হল।শুটিং চলছে নরেন্দ্রপুরের সিলেক্ট হাউসে।শুটিং-এ হাজির হয়ে দেখা গেল ছবির শুটিং চলছে জোর কদমে।পরিচালক অরুণিমা দে ব্যস্ত শট নিতে।ছবির কাহিনি পরিকল্পনা ও প্রযোজনায় পরিচালকই।কাহিনি বিন্যাস,চিত্রনাট্য ও সংলাপ রচনা করেছেন-শংকর দাশগুপ্ত
ছবির সংক্ষিপ্ত কাহিনি এরকম-সাহিত্যিকা অরুনিমা সেন,এবছর অ্যাকাডেমী পুরষ্কার পেয়েছেন তাঁর রচিত ‘কুয়াশার জোৎস্না‘ উপন্যাসের জন্য।তিনি আজ একটি নতুন উপন্যাস শুরু করেছেন।এই উপন্যাসের তিনটি মুখ্য চরিত্র,তিন বয়সের তিন নারী। তারা হলেন-গুঞ্জন,সিঁদুরও আশালতা।গুঞ্জনের জন্ম অভিজাত রায় চৌধুরী পরিবারে।তার বাবা সুরথ,মা সুপর্না।রায়চৌধুরী পরিবারের সর্বময় কত্রী হচ্ছেন গুঞ্জনের ঠাকুমা,অলকানন্দা দেবী।তাঁর কথাই এই পরিবারের শেষ কথা।গুঞ্জনের জন্মের পর থেকেই তাকে এই পরিবারের বাবা ছাড়া,সকলের কাছেই তার ‘মেয়ে’ হয়ে জন্মের প্রতিপদে কথা শুনতে হয়েছে।

সেই গুঞ্জন ধীরে ধীরে প্রতিবাদী হয়ে ওঠে।পুরুষের লোভও সে বুঝতে পারে। কিভাবে গুঞ্জন তার বাবার অনুপ্রেরণায়,শেষ পর্যন্ত তার পনের ষোল বছর বয়সে,প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে স্পষ্টই রুখে দাঁড়াল-তা নিয়েই অরূণিমা সেনের উপন্যাসের প্রথম পর্যায়। উপন্যাসের দ্বিতীয় পর্যায়ের নায়িকা সিঁদুর।পিতৃমাতৃহীন সিঁদুর তার জ্যেঠু নির্বানের কাছে মানুষ। সিঁদুর এম.এ. পাশ করলে,নির্বাণ সিঁদুরকে বিয়ে দেন।সিঁদুর ফুলশয্যার রাতেই তার স্বামী, কর্পোরেট অফিসার অতনুর চূড়ান্ত পাশবিক অত্যাচার ভোগ করে ,স্তব্ধ হয়ে যায়।এরপর প্রতি রাতেই,অতনুর পশুত্বের শিকার হয়।বাধ্য হয়ে সিঁদুর তার জ্যেঠুকে সব জানায়।অতনুর সঙ্গে সিঁদুরের ডিভোর্স করান নির্বাণ।এরপর সিঁদুরের পরিচয় হয় অনুভবের সঙ্গে। তারপর কি হয় তা নিয়েই দ্বিতীয় পর্যায়ের কাহিনি।
উপন্যাসের শেষ পর্যায়টি ৬৫ বছরের আশালতাকে নিয়ে।আশালতা তার ছেলে অশোক ও ছেলের বউ সুগতার সঙ্গে থাকতো।এরা দুজন অত্যন্ত দুর্ব্যবহার করতো আশালতার সঙ্গে।শিক্ষিতা আশালতার পরিচয় হয় অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক মনিময় সান্যালের সঙ্গে।বেঁচে থাকার মানে খুঁজে পান আশালতা।তারপর কি হয় তা নিয়েই তৃতীয় পর্যায়। আর তিনটে পর্যায় নিয়েই অরূণিমা সেনের উপন্যাস ‘তুমি ও তুমি’।আর ছবির নামও ‘ তুমি ও তুমি’।

অভিনয়ে আছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়,লিলি চক্রবর্তী,বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী,রাজেশ শর্মা,অনুরধা রায়,ভাস্কর ব্যানার্জী,বিশ্বনাথ বসু,অর্পিতা দত্ত চৌধুরী,মৌসুমী ভট্টাচার্য,সোমনাথ শর্মা,উত্তম দত্ত,রাজু ঠক্কর,সায়রী চৌধুরী ঘোষ,টুইঙ্কল,রূপকথা সেনগুপ্ত এবং অরুণিমা দে

শংকর দাসগুপ্ত ও সন্দীপ সিংহ-র গীতরচনায় সঙ্গীত পরিচালনা করছেন-সন্দীপ সিংহ।ক্যামেরায় সন্দীপ সেন।

 

রামিজ আলি আহমেদ

P.c Bulan

 

 
Likes:
0 0
Views:
114
Article Categories:
Tollywood News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

PHP Code Snippets Powered By : XYZScripts.com